শিক্ষা

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ও লটারি ফলাফল ২০২২

শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত 2022 সালে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে. ঢাকাসহ সারা দেশের সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু হবে ২৫ নভেম্বর থেকে এবং আবেদন করার শেষ তারিখ ০৮ ডিসেম্বর 2021 পর্যন্ত. শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন. আপনি যদি সরকারি মাধ্যমিকবিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন করতে চান তাহলে এই ঠিকানায় আবেদন করুন (https://gsa.teletalk.com.bd)

মাধ্যমিক স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি  ২০২২

মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের 2022 সালের ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে এবং ইতিমধ্যেই আবেদনটি অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে. তাছাড়াও এই আবেদনটি আমাদের সাইট থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন.

মাধ্যমিক সরকারি স্কুলের ভর্তির আবেদন ফরম পূরণের নিয়মাবলী ২০২২

সকল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ২০২২ সালের শিক্ষার্থীদের ভর্তির আবেদন ফরম পূরণ ২৫ শে নভেম্বর থেকে ০৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে এবং ১৫ ডিসেম্বর লটারি ফলাফল প্রকাশিত হবে. এজন্য শিক্ষার্থীদের অনলাইনে আবেদন করতে হবে এবং টেলিটক প্রিপেইড মোবাইল এর মাধ্যমে আবেদনের ফি পরিশোধ করতে হবে.অনলাইনে শিক্ষার্থীদের আবেদন করতে হবে আবেদন করার ঠিকানা http://gsa.teletalk.com.bd
অনলাইনে শিক্ষার্থীদের আবেদন ফরম পূরণ করার সময় সঠিক তথ্য দিতে হবে. তারপর সাবমিট করতে হবে. তারপর শিক্ষার্থী ইউজার আইডি পাবেন এবং ইউজার আইডি দিয়ে মোবাইল এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন ফি পরিশোধ করতে হবে.

সরকারি স্কুলের ভর্তির আবেদন কোথায় করবেন

শিক্ষা মন্ত্রণালয় গৃহীত সিদ্ধান্ত গত বছরের ন্যায় এ বছরও অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তির জন্য আবেদন করতে হবে এবং এবছরও ভর্তির আবেদন বিতরণ করা হবে না স্কুলে. তবে অনলাইনে আবেদন করতে হবে এবং ১৫ ডিসেম্বর অনলাইনের মাধ্যমে ফলাফল প্রকাশিত হবে.

অনলাইনে ভর্তির আবেদন ফরম পূরণ

মাধ্যমিক স্কুলের ভর্তির আবেদন এবছর অনলাইনের মাধ্যমে করতে হবে. এই আবেদনটি ২৫ শে নভেম্বর থেকে ০৮ ডিসেম্বরের মধ্যে করতে হবে. অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ ও ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটhttp://www.dshe.gov.bd ) ও টেলিটকের ওয়েবসাইট https://teletalk.com.bd/bn/ )থেকে জানা যাবে।

অনলাইনে ভর্তির আবেদন ফি ১১০ টাকা

অনলাইনে আবেদন সম্পন্ন করার পর আবেদন ফি পরিশোধ করতে হবে এবং এই আবেদন ফি শুধুমাত্র টেলিটক প্রিপেইড মোবাইল থেকে এসএমএস এর মাধ্যমে প্রদান করা যাবে. মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের এই বছর আবেদন ফি বাবদ দিতে হবে ১১০ টাকা.

শিক্ষার্থীদের স্কুলের গ্রুপ, লিফট ও পছন্দক্রম

মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে আবেদন করার কতগুলি নিয়ম রয়েছে এবং কতটি বিদ্যালয় আবেদন করতে পারবেন তা জেনে আবেদন করতে হবে. শিক্ষা অধিদপ্তর কর্তৃক প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে ঢাকা মহানগর মাধ্যমিক সরকারি স্কুলে ৪৪ টি বিদ্যালয় (তিনটি ফিডার শাখাসহ) তিনটি ভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত করা থাকবে. যখন একজন শিক্ষার্থী অনলাইনে আবেদন করবেন তখন একই গ্রুপে সর্বোচ্চ ৫ টি বিদ্যালয় নির্বাচন করতে পারবেন.

তাছাড়াও সারাদেশে আবেদনকারীর আবেদনের সময় প্রতিষ্ঠান নির্বাচনকালে থানা ভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একটি তালিকা পাবেন এবং এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরা প্রাপ্য তার ভিত্তিতে ভর্তি আবেদনের সর্বোচ্চ ৫টি বিদ্যালয় নির্বাচন করতে পারবেন. এছাড়াও আরও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যদি কোনো শিক্ষার্থী ডাবল শিফট এর প্রতিষ্ঠান নির্বাচন করেন সেক্ষেত্রে দুইটি পছন্দক্রম সম্পূর্ণ বলে বিবেচিত হবে. তবে একেই পছন্দক্রমের বিদ্যালয় কিংবা শিফট দ্বিতীয় বার নির্বাচন করা যাবে না.

লটারির ফলাফল কবে প্রকাশিত হবে ২০২২

শিক্ষার্থীদের অনলাইনের মাধ্যমে ২৫ শে নভেম্বর থেকে ০৮ ডিসেম্বরের মধ্যে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে এবং শিক্ষা অধিদপ্তর ১৫ ডিসেম্বর লটারি ফলাফল তাদের নিজস্ব অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশ করবেন.

মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের লটারি ফলাফল কোথায় পাওয়া যাবে

মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে আবেদনের পর শিক্ষা অধিদপ্তর লটারির ফলাফল 15 ডিসেম্বর প্রকাশ করবেন তাদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে এবং তাছাড়াও প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে নিজস্ব প্রতিষ্ঠান ফলাফল তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত থাকবে

ডিজিটাল লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের 2022 সালের অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠেয ডিজিটাল লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের নির্বাচিত হবেন এবং লটারি ফলাফল মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ১৫ ডিসেম্বর প্রকাশিত হবে.

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে যে ডিজিটাল নোটারি কার্যক্রমে অংশ উপকারী প্রতিষ্ঠান বাইরে প্রতিষ্ঠানগুলোকে সহ ভর্তি কমিটির মাধ্যমে লটারি প্রক্রিয়ায় শিক্ষার্থী নির্বাচন করতে হবে এবং লটারির ফলাফল তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে হবে. তাছাড়া অন্য কোন উপায়ে ভর্তি পরীক্ষার শিক্ষার্থীর নির্বাচন করা যাবে না

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক/ শিক্ষিকা /কর্মচারীদের ভর্তি উপযুক্ত সন্তানদের জন্য আসন সংরক্ষিত থাকবে. তবে তাদের অনলাইনে আবেদন করার প্রয়োজন হবে না.

মাধ্যমিক সহকারী বালক বিদ্যালয় কর্মরত শিক্ষক/ শিক্ষিকা/ কর্মচারী কর্মরত থাকলে তাদের ভর্তিচ্ছু সন্তানদের পার্শ্ববর্তী বালক বিদ্যালয় এর আসন সংরক্ষিত থাকবে এবং বালিকা বিদ্যালয়ে কর্মরত থাকলে তাদের সন্তানদের পার্শ্ববর্তী বালিকা বিদ্যালয় আসন সংরক্ষিত থাকবে.

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের সন্তান ভর্তির ক্ষেত্রে দুই শতাংশ কোটা সংরক্ষিত থাকবে

Related Articles

Back to top button