Uncategorized

বাংলাদেশে ফুডপান্ডা গ্রাহক পরিষেবার নম্বর, ইমেল, সামাজিক প্রোফাইল এবং অফিসের ঠিকানা

বাংলাদেশের যতগুলো বাণিজ্যিক জনপ্রিয় অনলাইন পরিষেবার হয়েছে তার মধ্যে ফুডপান্ডা অন্যতম. বাংলাদেশ তথা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ফুডপান্ডা অনলাইন পরিষেবা চালু রয়েছে এবং এর জনপ্রিয়তা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে. সুতরাং বাংলাদেশি অনলাইন অর্ডার মানে ফুডপান্ডা নামটা চলে আসে এবং মানুষ তাদের প্রয়োজনে সব সময় ফুডপান্ডার মাধ্যমে অর্ডার করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে. আর ফুডপান্ডা অনলাইন পরিষেবাটি ইতিমধ্যে বাংলাদেশ গ্রাহকদের মাঝে স্বনির্ভরতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে এবং তাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে উন্নত সেবা প্রদানের মাধ্যমে ব্যবসার উন্নতি লাভ করা.

আপনি যদি ফুডপান্ডা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে আমাদের এই নিবন্ধের পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন. আজ আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে ফুডস্টরে হেল্পলাইন নাম্বার ইমেইল ঠিকানা ও প্রধান কার্যালয় ঠিকানা সহ সমস্ত আপডেট তথ্য সংগ্রহ করেছি যাতে আপনি সহজেই বিস্তারিত তথ্য জানতে পারেন এবং ফুডপান্ডায় অর্ডার করে স্বাতন্ত্র্যবোধ করতে পারেন. ফুডপান্ডা অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনি অর্ডার গ্রহণ করতে পারেন তারপর ফুড পান্ডা কর্তৃক পরিচালিত রাইটার আপনার পণ্যটি পৌঁছে দিলে আপনি অর্থ প্রেরণের মাধ্যমে তা গ্রহণ করতে পারেন. সুতরাং আজ আমরা এখানে ফুডপাণ্ডার গ্রাহক পরিষেবা ফুডপান্ডা নাম্বার ও যোগাযোগের যত মাধ্যম সবগুলো বিস্তারিতভাবে নিম্নে ধারাবাহিকভাবে তুলে ধরেছি.

বাংলাদেশি ফুডপান্ডা গ্রাহক পরিষেবা

আপনি যদি একজন খাদ্য পান্ডা গ্রাহক হয়ে থাকেন এবং বিভিন্ন সময় ফুডপান্ডা পরিষদের দলের সাথে আপনার যোগাযোগ করার প্রয়োজন হতে পারে. যেমন নিম্নমানের খাদ্য প্রদান, ডেলিভারি ম্যান সংক্রান্ত, অর্থ প্রদান সংক্রান্ত, খাবার দেরিতে ডেলিভারিসহ বিভিন্ন সমস্যার কারণ. সুতরাং আপনি নিচের বিভিন্ন পদ্ধতি রয়েছে যেগুলো অনুসরণ করে আপনি দ্রুত পরিষেবা পেতে পারেন.

ফুডপান্ডা পরিষেবা কেন্দ্রের নাম্বার

ফুডপাণ্ডার পরিষেবাগুলির মধ্যে গ্রাহকরা প্রচুর সমস্যা খুঁজে পান এবং যে কারণে গ্রাহকদের ফুড পান্ডা কর্তৃপক্ষের সাথে কল সেন্টারের মাধ্যমে যোগাযোগ করার প্রয়োজন হতে পারে. এজন্য ফুডপান্ডা গ্রাহকদের ফুডপাণ্ডার কল সেন্টার নাম্বার প্রয়োজন হয়. তাছাড়াও আপনার যদি একাউন্ট অ্যাক্টিভেশন, পাসওয়ার্ড পরিবর্তন, পেমেন্ট ও রিফান্ড ইস্যু, রাইটার ব্যবস্থার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে আপনি যোগাযোগের জন্য অন্যান্য পদ্ধতি গ্রহণ করতে পারেন.

বাংলাদেশ ফুড পান্ডা গ্রাহক পরিষেবা এবং ইমেইল ঠিকানা

বাংলাদেশ ফুড পান্ডা একটি অফিসিয়াল ইমেইল এড্রেস রয়েছে যেখানে গ্রাহকরা তাদের সমস্যাটা লেখে ইমেইল প্রেরণ করতে পারে. আর এই ইমেইল ঠিকানাটি হচ্ছে support@foodpanda.com.bd. আপনার মেইলটির ফুডপান্ডা কর্তৃপক্ষ পাওয়ার পরে আপনার সমস্যাটি সমাধানের ফিরতি মেলে আপনাকে পরবর্তীতে জানিয়ে দিবে.

বাংলাদেশের যারা কর্পোরেট ব্যবহারকারী রয়েছেন তাদের কর্পোরেট কর্মীদের জন্য কর্পোরেট ইমেইল টি ব্যবহার করতে পারেন. আর এই কর্পোরেট মেইলটি হচ্ছে corporate@foodpanda.com.bd. ফুডপান্ডা কথার কর্তৃপক্ষ এই মিলটা পাওয়ার পর গুরুত্বের সাথে তাদের খাবার পরিবেশন করবেন.

বাংলাদেশের ফুডপাণ্ডার গ্রাহকরা তাদের যেকোনো সমস্যার জন্য যেকোন সময় এই ইমেইলে খাবার অর্ডার করতে পারেন বা মেইল করতে পারেন.press@foodpanda.com.bd

যারা বাংলাদেশে ফুডপাণ্ডার গ্রাহক রয়েছেন তারা যদি ফেসবুক ব্যবহার করে থাকেন তারা তাদের ফুডপান্ডার অফিশিয়াল ওয়েবসাইট লিঙ্ক এ যোগ দিতে পারেন www.facebook.com/FoodpandaBangladesh.

Related Articles

Back to top button